জাতীয়দেশজুড়ে

কারখানায় নামাজ আদায় ও টুপি পরতে মানা, শ্রমিকদের ‘বিক্ষোভ’

গাজীপুরের টঙ্গীর দরাইল এলাকার এস অ্যান্ড পি বাংলা লিমিটেড নামক পোশাক কারখানায় নামাজ আদায় ও পাঞ্জাবি-টুপি পরিধান থেকে বিরত থাকার নোটিশ দেওয়ায় ‘বিক্ষোভ’ করেছেন শ্রমিকরা। বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) সকালে কাজ বন্ধ রেখে বিক্ষোভ করেন তারা।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের জ্যৈষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার এস আলম জানান, গত ৩ আগস্ট কর্তৃপক্ষ কারখানার অভ্যন্তরে নামাজ আদায় ও টুপি-পাঞ্জাবি পরিধান থেকে বিরত থাকার জন্য নোটিশ জারি করে। এতে শ্রমিকরা ক্ষিপ্ত হয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ওই আদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ করেন। ওই দাবির প্রেক্ষিতে কর্তৃপক্ষ সেটা প্রত্যাহার করে আরেকটি নোটিশ জারি করে। নতুন নোটিশ জারির পর শ্রমিকরা কাজে যোগ দেন।

গত ৩ আগস্ট কর্তৃপক্ষের জারি করা নোটিশে উল্লেখ করা হয়, কারখানার অভ্যন্তরে নামাজ পরা যাবে না এবং পাঞ্জাবি ও টুপি পরা যাবে না। এই আদেশ মেনে কারখানা অভ্যন্তরে কাজ করার বিশেষভাবে নির্দেশ দেওয়া হলো।

শ্রমিকদের দাবির মুখে আগের নোটিশটি প্রত্যাহার করে নতুন নোটিশ জারি করে কর্তৃপক্ষ। এতে উল্লেখ করে, কারখানা অভ্যন্তরে নামাজ আদায় এবং পাঞ্জাবি ও টুপি পরা থেকে বিরত থাকার বিষয়ে যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, তা অনিচ্ছাকৃত ভুল সিদ্ধান্ত ছিল। এর জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করছি। কারখানায় পূর্বের ন্যায় ধর্মীয় বিধিবিধান পালন করা যাবে। কারখানার পাঁচতলায় অজু ও নামাজের জন্য স্থান রয়েছে।

এস অ্যান্ড পি বাংলা লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক মাহবুব আলম দাবি করেন, ‘কারখানায় কোনও বিক্ষোভ হয়নি। দ্বিতীয় নোটিশে বিষয়টি প্রত্যাহার করা হয়েছে। তবে বিষয়টি জানতে বৃহস্পতিবার গণমাধ্যম ও পুলিশ সদস্যরা এসেছিলেন। শান্তিপূর্ণ সমাধান হয়েছে। কারখানার মোট সাড়ে ৬০০ শ্রমিক পুরোদমে উৎপাদনে নিয়োজিত রয়েছেন।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button