ওলামা বার্তাজাতীয়

কওমী মাদরাসা সহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অবিলম্বে খুলে দিন: ইসলামী আন্দোলন

কওমী মাদরাসা সহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অবিলম্বে খুলে দিন: ইসলামী আন্দোলন

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ ও যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান অবিলম্বে দেশের কওমি মাদরাসাসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। দেশের এতিম, গরীব, অনাথ ও অসহায় ছাত্র-ছাত্রীদের কথা চিন্তা করে মাদরাসাগুলোর এতিমখানা ও লিল্লাহ বোর্ডিং দ্রুত খুলে দেওয়ার দাবি জানান।
আজ শনিবার এক যৌথ বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দেশের শিক্ষাব্যবস্থা। শিক্ষার সঙ্গে জড়িত সবকিছুতেই বিপর্যয় নেমে এসেছে। লাগাতার ১৬ মাস ধরে স্কুল, কলেজ,মাদরাসা এবং বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ।

মাঝখানে কিছুদিন কওমি মাদরাসা চালু থাকলেও আবারো তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। স্কুল, কলেজ ও আলিয়া মাদরাসার সকল ধরণের পরীক্ষা বন্ধ। গত বছরের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের অটো পাস দেয়া হয়েছে। এ বছরের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা এখনো হয়নি। পরীক্ষা হবে কি না, তাও স্পষ্ট নয়। শিক্ষার্থীরা পড়ার টেবিল ছেড়ে এবারও অটো পাসের অপেক্ষায়। নেতৃবৃন্দ বলেন, শিক্ষামন্ত্রী বলছেন, ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার জন্য অভিভাবকদের কোন চাপ নেই’ তার এ বক্তব্যে প্রমাণ করে দেশের সাধারণ মানুষের সাথে মন্ত্রীদের কোন সম্পর্ক নেই। তারা অবিলম্বে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার জোর দাবি জানান।

নেতৃদ্বয় বলেন, করোনার অজুহাতে দেশের কওমী মাদরাসাগুলো বন্ধ থাকার কারণে ছাত্র, শিক্ষক ও অভিভাবক সবাই চরমভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বিবৃতিতে তারা বলেন, দেশের প্রায় প্রতিটি কওমি মাদরাসার এতিমখানা ও লিল্লাহ বোর্ডিং রয়েছে। লিল্লাহ বোর্ডিং-এ লাখ লাখ এতিম, গরীব, অসহায় ও অনাথ শিক্ষার্থীদের ফ্রি থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়।

সমাজের বিত্তবান মানুষের যাকাত, ফেতরা ও অনুদানে পরিচালিত লিল্লাহ বোর্ডিং এর মাধ্যমে কওমী মাদরাসাগুলো এই বিশাল দায়িত্ব পালন করে থাকে। নেতৃদ্বয় বলেন, করোনার অজুহাতে মাদরাসাগুলোর পাশাপাশি মাদরাসা সংশ্লিষ্ট এতিমখানা এবং লিল্লাহ বোর্ডিংগুলো বন্ধ রয়েছে। যাতে করে সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়েছে দরিদ্র অসহায় ছাত্র-ছাত্রী এবং তাদের অভিভাবকরা। এহেন পরিস্থিতিতে কওমী মাদরাসাসহ সকল প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবি জানান।

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button