পারিবারিক কলহের জেড়ে নিজের
দুই বছরের মেয়েকে গলা টিপে হত্যা করল মা

নরসিংদীতে পারিবারিক কলহের জেড়ে নিজের এক কণ্যা শিশুকে গলাটিপে হত্যা করেছে মা। গত (১৩ মে) সদরের বানিয়াছল মহল্লায় এ ঘটনাটি ঘটে।

এঘটনায় নিহত শিশুটির পিতা মো.সোহাগ মিয়া সোমবার (১৭ মে) নিজে বাদী হয়ে স্ত্রী কোহিনূর বেগমকে আসামী করে নরসিংদী সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

মামলা দায়ের এক ঘন্টার মধ্যে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। অভিযুক্ত নরসিংদী রায়পুরার উপজেলার দড়ি হাইরমারা গ্রামের আব্দুর রউফ মিয়ার মেয়ে।

আজ বৃহস্পতিবার (২০ মে) রাতে নরসিংদী জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইনামুল হক সাগরের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মাহে রমাজনের ঈদ উপলক্ষে গত ১৩ মে সন্ধ্যায় বানিয়াছল মহল্লায় ঈদের আগের দিন কেনাকাটাকে কেন্দ্র করে সোহাগ মিয়া ও স্ত্রী কহিনূর বেগমের মধ্যে ঝগড়া তৈরি হয়ে। এতে এক পর্যায়ে রাগে দুই বছরের শিশু তানহার গলা ও মুখ চেপে ধরে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা মা কহিনূর।

হত্যার পর লাশ নিয়ে কহিনূর তার বাবার বাড়ি রায়পুরার দড়ি হাইরমারা গ্রামে রেখে পালিয়ে যায়। পরে নিহতের পিতা থানায় অভিযোগ করলে ঐদিনই এক ঘন্টার মধ্যে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সর্বশেষ আসামি হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারার জবানবন্দি দিয়েছে।