মুসলিমদের অনৈক্যের কারণে ফিলিস্তিনে নির্যাতন: সাইফুদ্দীন

 

বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির চেয়ারম্যান সাইয়্যিদ সাইফুদ্দীন আহমদ আল হাসানী বলেছেন, ‘আজ নিজ ভূখণ্ডে পরাধীন ও শরণার্থী হয়ে পড়েছে ফিলিস্তিনিরা। বিভিন্ন সময় বহু আলোচনা, চুক্তি, প্রতিশ্রুতিও স্থায়ী সমাধান আনতে পারেনি। এজন্য সবচেয়ে বেশি দায়ী মুসলিম দেশগুলোর অনৈক্য ও নিঃস্পৃহতা। নিজ ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার জন্য, মুসলিম স্বার্থকে তারা জলাঞ্জলি দিয়ে প্রভাবশালীদের আনুগত্য গ্রহণ করেছে।’
মঙ্গলবার (১১ মে) বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সাইফুদ্দীন এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘মুসলমানদের পবিত্র স্থান, প্রথম কিবলা মসজিদুল আকসাতে নামাজরত নিরীহ ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি বাহিনী যে বর্বরোচিত হামলা চালিয়েছে তাতে এটাই প্রমাণিত হয় যে, ইসরায়েল একটি জঙ্গি গোষ্ঠী। আমরা ইসরায়েলকে রাষ্ট্র বলে স্বীকার করব না কারণ, রাষ্ট্র হিসেবে যে দায়িত্ববোধ ও আন্তর্জাতিক আইন, মানবাধিকারের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ থাকতে হয়; ইসরায়েল কখনোই তা ধারণ করেনি।’

সাইফুদ্দীন আরও বলেন, ‘একটি সার্বভৌম রাষ্ট্রের জনগণের ওপর হামলা করা নিঃসন্দেহে জঙ্গিবাদী আচরণ। এটি কোন রাষ্ট্রের বৈশিষ্ট্য হতে পারে না। মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন সত্ত্বেও জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ কোন ব্যবস্থা নিতে অপারগ। জাতিসংঘসহ বিশ্বসংস্থাগুলো যে শুধুমাত্রই বৈশ্বিক পরাশক্তিগুলোর রিমোটে নিয়ন্ত্রিত যন্ত্রমাত্র, ফিলিস্তিন সংকট তার জলজ্যান্ত প্রমাণ।’