একান্ত শুভাকাঙ্ক্ষীদের জন্য : মাওলানা হাবিবুর রহমান এর আবেদ

ভালো না লাগলে এড়িয়ে যাবেন : মাওলানা হাবিবুর রহমান মিসবাহ

নিজ খরচেই মাদরাসা পরিচালনা করার চেষ্টা করছি প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই। তবুও কিছু শুভাকাঙ্ক্ষী অন্তত পবিত্র রমযানকে সামনে রেখে মারাকাযুত তাকওয়ায় কিছু অনুদান পেশ করতেন৷ এবারও হয়ত করবেন ইনশাআল্লাহ। তবে লকডাউন ও নানা পারিপার্শ্বিকতার কারণে সবাই-ই সমস্যায় আছেন।

প্রতিমাসে প্রায় ৪০ টা পরিবারের রিজিকের ব্যবস্থা আল্লাহ আমার মাধ্যমে করান। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি তো সবারই জানা।

মারকাযুত তাকওয়া সম্পূর্ণ কওমীধারায় চলে, তবে কালেকশন ছাড়া। আমরা কালেকশন করি না। স্বেচ্ছায় প্রদানকৃত দান গ্রহণ করি। বাকি সব খরচ আমাকেই বহন করতে হয়। মারকাযে বেশিরভাগ অসচ্ছল ছাত্রই ভর্তি হয়। ফলে ছাত্রদের টাকা দিয়ে তেমন কিছুই হয় না। মাদরাসার ভাড়াসহ যাবতীয় ঋণের বোঝা যেভাবে বেড়ে চলছে তাতে কীভাবে কী করব জানি না।

করোনার কারণে এবার মারকাযের ইফতার মাহফিল বন্ধ।

কালেকশন বা ধনী ব্যক্তিদের কাছে গিয়ে কীভাবে চাইতে হয় সে ট্রেনিং আমার নাই। চাওয়ার পরিচিত যে দৃশ্য সেটা আমার দ্বারা সম্ভব নয়।

যাহোক! দোয়ার জন্য আপনাদের সঙ্গে বিষয়টা শেয়ার করেছি। এরপরও লজ্জা ফেলে আবেদন করছি— কোনো শুভাকাঙ্ক্ষী শরীক হতে চাইলে মারকাযের অফিসিয়াল নাম্বারে যোগাযোগ করবেন ইনশাআল্লাহ।

01941-686495 (বিকাশ পার্সোনাল)
যাকাত | ফিতরা | সাধারণ দান
যে খাতে দেবেন সেটা বিকাশ রেফারেন্সে অথবা ফোন করে জানিয়ে দেবেন অবশ্যই।

আরজগুজার
হাবিবুর রহমান মিছবাহ [কুয়াকাটা]
পরিচালক, অত্র মারকাজ

লেখকের ফেসবুক থেকে।