আলেমদের উপর মিথ্যা মামলা গ্রেফতার বন্ধ না হলে কঠোর পদক্ষেপের ঘোষণা; হেফাজত মহাসচিব

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ-এর ঢাকা মহানগর কমিটির সহসভাপতি ও লালবাগ মাদরাসার মুহাদ্দীস মাওলানা যুবায়ের আহমদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছেন সংগঠনটির মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদী।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে তিনি এই দাবি জানান।

আল্লামা নুরুল ইসলাম বলেন, আজ শুক্রবার হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ-এর ঢাকা মহানগর কমিটির সহসভাপতি ও লালবাগ মাদরাসার মুহাদ্দীস মাওলানা যুবায়ের আহমদকে ডিবি পুলিশ গ্রেফতার করেছে। পবিত্র রমজান মাসে এভাবে নিরাপরাধ আলেমদের গ্রেফতার করা কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। আমি মাওলানা যুবায়ের আহমদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানাচ্ছি। অতিসত্ত্বর তাকে মুক্তি দিতে হবে।

তিনি বলেন, পবিত্র রমজান মাসে ওলামায়ে কেরামকে গ্রেফতার ও হয়রানি করা হচ্ছে। কেনো এ ধরণের হয়রানী করছে প্রশাসন তা আমাদের বোধগম্য নয়। আলেম-উলামারা মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ওয়ারিশ। তাদের সাথে এধরণের আচরণ দেশ ও জাতীর জন্য কল্যাণকর নয়। সরকারকে এসব হটকারি সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে হবে। অনতিবিলম্বে গ্রেপ্তারকৃত সকল আলেম-উলামাদের মুক্তি দিতে হবে।

আল্লামা নুরুল ইসলাম বলেন, হেফাজতে ইসলাম একটি সুশৃঙ্খল দল। হেফাজতের সকল আন্দোলন শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খল। হেফাজতে ইসলামের কোন নেতাকর্মী হামলা, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ ইত্যাদি কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত নয়। রাতের বেলায় বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের উপর এভাবে হয়রানি ও মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার করা হলে আমরা নিশ্চুপ বসে থাকবো না। এভাবে চলতে থাকলে পরামর্শক্রমে হেফাজতে ইসলাম কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে বাধ্য হবে।