প্রখ্যাত আলেম মাওলানা ওয়ালি রহমানির ইন্তেকালে সাইয়্যিদ আসআদ মাদানীর শোক পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ভারতের প্রখ্যাত আলেম ও অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের সাবেক সেক্রাটারি মাওলানা ওয়ালি রহমানি ইন্তেকালে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের সভাপতি মাওলানা ক্বারী সাইয়্যিদ মুহাম্মাদ উসমান মানসুরপুরী ও সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা সাইয়্যিদ মাহমুদ আসআদ মাদানী। রোববার (৪ এপ্রিল) ভারতীয় গণমাধ্যমে যৌথ বিবৃতি দিয়ে তারা বলেন, মাওলানা ওয়ালি রহমানির সাথে জমিয়তের দীর্ঘদিনের সম্পর্ক। তিনি জমিয়তের জন্য সবসময় নিবেদিত ছিলেন। জমিয়তের কার্যক্রম ও আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করতেন। তাঁর ইন্তেকালে আমরা মহৎপ্রাণ ত্যাগী একজন জমিয়ত নেতাকে হারালাম। মাওলানা মাহমুদ আসআদ মাদানী বলেন, অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের সাবেক সেক্রাটারি মাওলানা ওয়ালি রহমানি করোনা আক্রান্ত ছিলেন। করোনা আক্রান্ত হওয়ার সপ্তাহ খানেক আগে তিনি টিকা গ্রহণ করেন। এরপর তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। আজ তিনি আমাদের মাঝে নেই। তাঁর মৃত্যুতে আমি গভীর শোক জ্ঞাপন করার পাশাপাশি প্রয়াতের আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি। সেই সাথে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই। উল্লেখ্য, শনিবার (৩ এপ্রিল) বিহার রাজ্যের পাটনা জেলার একটি বেসরকারি হাসপাতালে মাওলানা ওয়ালি রহমানি ইন্তেকাল করেছেন। তিনি ছিলেন মুঙ্গেরের খানজা ই রহমানির পীর ও মুসলিম শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রতিষ্ঠান রহমানি-৩০ প্রকল্পের প্রতিষ্ঠাতা। এছাড়াও তিনি বিধানসভার সাবেক সদস্য ছিলেন। মাওলানা রহমানির সঙ্গে গভীর সম্পর্কের কথা জানান বিহারের মুখ্যমন্ত্রী। মাওলনা ওয়ালি রহমানি ১৯৪৩ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর দাদা ছিলেন মাওলানা মুহাম্মাদ আলি মুঙ্গেরি (রহ.), যিনি লখনৌয়ের বিশ্ববিখ্যাত ইসলামী প্রতিষ্ঠান দারুল উলুম নদওয়াতুল উলামা প্রতিষ্ঠাতারদের অন্যতম সদস্য ছিলেন। ১৯৭৪-১৯৯৬ সাল পর্যন্ত মাওলনা রহমানি বিহার রাজ্যের আইন সভার অন্যতম সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও মাওলানা রহমানি ইমারাত ই শরিয়ার প্রধান ছিলেন।