হজের অনুমতিতে বিশেষ নির্দেশনা নিয়ে আসছে সৌদি আরব

সৌদি আরবের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই বছরের হজ পালনের অনুমতিতে বাধ্যতামূলক করোনাভাইরাস সংক্রমণের টিকাসহ বিশেষ বিভিন্ন নির্দেশনা নিয়ে আসছে। শনিবার সৌদি সংবাদমাধ্যমগুলোতে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।
প্রতিবেদনে জানানো হয়, হজের অনুমতি পেতে হজযাত্রীকে আগেই দুই দফা করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধী টিকা নিতে হবে। সৌদি আরবের বাসিন্দাদের এই ক্ষেত্রে ১ জিলহজের আগেই টিকা নিয়ে শেষ করতে হবে।

অপরদিকে সৌদি আরবের বাইরে থেকে যাওয়া হজযাত্রীদের দেশটিতে যাওয়ার এক সপ্তাহ আগেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) অনুমোদিত টিকার দ্বিতীয় ধাপ শেষ করতে হবে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, এই বছর ১৮ থেকে ৬০ বছর বয়সীরাই শুধু হজের অনুমতি পাবেন। সৌদি আরবের বাইরে থেকে যাওয়া হজযাত্রীদের দেশটিতে আসার ৭২ ঘণ্টা আগেই করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরীক্ষা করে আসতে হবে। পরীক্ষার ফলের ওপর ভিত্তি করে তাদের সৌদি আরবে যাওয়ার অনুমতি দেয়া হবে।
প্রতিবেদনে আরো জানানো হয়, সৌদি আরবে বিদেশী হজযাত্রীরা পৌঁছার পর তাদের আবার করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরীক্ষা করা হবে এবং ৭২ ঘণ্টা বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।
করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করে হজ পরিচালনার নির্দেশনায় সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আরো জানায়, হজ পালনের সময় সবাইকে বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরা এবং এক ব্যক্তি থেকে অপর ব্যক্তির মধ্যে অন্তত এক দশমিক পাঁচ মিটার (চার দশমিক ১১ ফুট) দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।
সূত্র : সৌদি গেজেট
প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।
প্রতিবেদনে জানানো হয়, হজের অনুমতি পেতে হজযাত্রীকে আগেই দুই দফা করোzনা সংক্রমণ প্রতিরোধী টিকা নিতে হবে। সৌদি আরবের বাসিন্দাদের এই ক্ষেত্রে ১ জিলহজের আগেই টিকা নিয়ে শেষ করতে হবে।

 

অপরদিকে সৌদি আরবের বাইরে থেকে যাওয়া হজযাত্রীদের দেশটিতে যাওয়ার এক সপ্তাহ আগেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডqব্লিউএইচও) অনুমোদিত টিকার দ্বিতীয় ধাপ শেষ করতে হবে।

 

প্রতিবেদনে জানানো হয়, এই বছর ১৮ থেকে ৬০ বছর বয়সীরাই শুধু হজের অনুমতি পাবেন। সৌদি আরবের বাইরে থেকে যাওয়া হজযাত্রীদের দেশটিতে আসার ৭২ ঘণ্টা আগেই করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরীক্ষা করে আসতে হবে। পরীক্ষার ফলের ওপর ভিত্তি করে তাদের সৌদি আরবে যাওয়ার অনুমতি দেয়া হবে।

 

প্রতিবেদনে আরো জানানো হয়, সৌদি আরবে বিদেশী হজযাত্রীরা পৌঁছার পর তাদের আবার করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরীক্ষা করা হবে এবং ৭২ ঘণ্টা বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।
করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করে হজ পরিচালনার নির্দেশনায় সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আরো জানায়, হজ পালনের সময় সবাইকে বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরা এবং এক ব্যক্তি থেকে অপর ব্যক্তির মধ্যে অন্তত এক দশমিক পাঁচ মিটার (চার দশমিক ১১ ফুট) দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।
সূত্র : সৌদি গেজেট