মাওলানা সাঈদীর আয়কর ফাঁকি : সাক্ষ্যগ্রহণ ১৫ মার্চ পর্যন্ত মুলতবি

ইসলামী জার্নাল : একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের নায়েবে আমীর দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর বিরুদ্ধে আয়কর ফাঁকির অভিযোগে দায়ের করা মামলায় প্রথম সাক্ষ্যগ্রহণের দিন পিছিয়ে আগামী ১৫ মার্চ ধার্য করেছেন আদালত।
গত ৬ জানুয়ারি মামলায় প্রথম সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ শুরু হলে অসমাপ্ত অবস্থায় তা বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত মুলতবি করেছিলেন আদালত। মামলার সাক্ষী অসুস্থ থাকায় আজ এ বিষয়ে শুনানি না করে পরবর্তী তারিখ ধার্য করা হয়েছে।

 

রাজধানীর বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালত-৩ এর ভারপ্রাপ্ত বিচারক নজরুল ইসলামের আদালতে বৃহস্পতিবার যুগ্ম কর কমিশনার মাসুমা খাতুনের জবানবন্দি পেশ করার কথা থাকলেও তিনি অসুস্থতাজনিত কারণে হাজির না হওয়ায় আদালত এ আদেশ দেন।
গত ৬ জানুয়ারি আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের শুনানিতে আইনজীবী ছিলেন রেজাউল করিম বাচ্চু। আসামিপক্ষে ছিলেন মুহাম্মদ মুজাহিদুল ইসলাম।

শুনানির আগে ওই দিন সকাল সাড়ে নয়টার দিকে মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে বকশীবাজার আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত বিশেষ আদালতে আনা হয়। সকাল ১০টার পর মামলার কার্যক্রম শুরু হয়ে দুপুর পর্যন্ত সাক্ষ্যগ্রহণ চলে। আয়কর ফাঁকির অভিযোগে করা এই মামলায় সাঈদীই একমাত্র আসামি।

 

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, ২০১১ সালের ১৯ আগস্ট মামলাটি দায়ের হয়। এ মামলায় সাঈদীর বিরুদ্ধে আয় গোপন করে ৫৬ লাখ ৪৬ হাজার ৮১২ টাকা কর ফাঁকির অভিযোগ আনা হয়। এরপর মামলাটিতে ২০১২ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত।