আল আকসা হামলা চালিয়ে ৩ যুবক ও ১ যুবতীকে ধরে নিয়ে গেলো ইসরায়েলি সেনারা

ইসলামী জার্নাল : আল আকসা থেকে ইসরায়েলি দখলদার সেনারা ফিলিস্তিনি ৩ যুবক ও এক যুবতীকে আল  গ্রেপ্তার করেছে,

 

এবং বেশকিছু ঘর ও তারা ধ্বংস করে দিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে৷

 

আজ (সোমবার ৮ফেব্রুয়ারি) প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী আল-আকসা মসজিদের বাবে রাহমা,

 

গেটে হামলা চালিয়ে ৩জন যুবক ও এক তরুণীকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়৷

 

এর আগে ও তারা আল-আকসা মসজিদে হামলা চালিয়ে মসজিদে আকসা সহ “বাবে রহমার নামাজের স্থানের গম্বুজকে অপমানিত করেছে৷

 

স্থানীয় সূত্র জানায়, একইদিনে তারা অধিকৃত জেরুসালেমের ইসলামিক কবরস্থানের তত্বাবধান কমিটির প্রধান ‘মোস্তফা আবু জহরাকে’ ও গ্রেপ্তার করে৷

কবরস্থান কমিটির সদস্য ‘মুহাম্মদ বাইদুন’ বলেন,

দখলদার বাহিনীর আবু জহরাকে হাতকড়া পরিয়ে শহরের একটি গ্রেপ্তার ও তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে যায়।

এছাড়াও ৪৮ জন বসতিস্থাপনকারী আজ সকালে দখলদার সৈন্যদের নিরাপত্তার

আকসা মসজিদের আঙ্গিনায় ফিলিস্তিনিদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে।

ফিলিস্তিনের বসতিস্থাপন প্রতিরোধ কমিটির উর্ধতন একজন কর্মী জানান,

 

দখলদার বাহিনী ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরের খিরবেত অঞ্চলে বেশ কয়কটি ঘর ও দুটি পশুর খামার ভেঙ্গে দেয়,

 

ফলে ১৪টিরও বেশি পরিবার আশ্রয়হীনভাবে খোলা মরুভূমীতে দিন কাটাচ্ছে৷

 

এবং দখলদাররা সেখানের অধিবাসীদেরকে এ ঘটনা কাউকে জানাতে নিষেধ করে এবং সেখানে সামরিক শক্তি বৃদ্ধি করে৷

 

এদিকে কোনভাবে ঘটনাটি ফিলিস্তিনি রেডিও, টেলিভিশনের সাংবাদিকরা এবং বসতিস্থাপন প্রতিরোধ কমিটি জানতে পেরে ঘটনাস্থলের দিকে রওনা হয়,

 

কিন্ত দখলদার সেনারা গাড়ী সহ তাদেরকেও আটক করে।

 

সূত্র: ফিলিস্তিন টুডে এবং আলকুদস আরবি