ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৫০০ ঘর পুড়ে ছাই –

ইসলামী জার্নাল ; কক্সবাজারের টেকনাফের নয়াপাড়া নিবন্ধিত ঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পে অগ্নিকাণ্ডে পাঁচ শতাধিক ঘর ভস্মীভূত হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। বৃহস্পতিবার ভোরে টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের শরণার্থী ক্যাম্পে এ আগুন লাগে বলে নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মুকুল নাথ।

তিনি বলেন, আগুনের তীব্রতা বেশ ভয়াবহ ছিল। তবে বড় কোনো ক্ষয়ক্ষতির আগেই তারা এ আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে পেরেছে।
টেকনাফ থানার তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুল আলিম জানান, স্থানীয় সময় বুধবার রাত ২টা ২০-২৫ মিনিটের দিকে আগুন লাগে। আর ভোর সাড়ে চারটার দিকে ফায়ার সার্ভিস গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
তিনি জানান, একটা ঘরে যখন আগুন লেগেছে, তখন অন্যরা সবাই সেফলি (নিরাপদভাবে) বের হয়ে গেছে।
এসব ঘরে এক হাজারের বেশি মানুষ বসবাস করতো বলে ধারণা করছে ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ। এরা সবাই রোহিঙ্গা শরণার্থী।
ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা নাথ বলেন, ‘শরণার্থী শিবিরের ঘরগুলো একটা আরেকটার গায়ে লেগে থাকার কারণে সহজেই এক ঘর থেকে আরেক ঘরে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। এই ঘরগুলো টিন, বাঁশের বেড়া আর প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি ছিল।’
গ্যাস সিলিন্ডার থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে স্থানীয়রা বলছেন। ফায়ার সার্ভিস বলছে, সিগারেট কিংবা কয়েলের আগুন থেকে এই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে তারা ধারণা করছে।
‘তবে আগুনের এ বিষয়ে তদন্তের আগে নিশ্চিত হওয়া যাবে না। এত রাতে কারো গ্যাস সিলিন্ডার জ্বালানোর কথা না,’ বলেন তিনি।
সূত্র : বিবিসি